শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে সিরিজে এগিয়ে প্রোটিয়ারা - দিনাজপুর বার্তা ২৪ | Dinajpur Barta 24

দিনাজপুর বার্তা ২৪ | Dinajpur Barta 24

ব্রেকিং নিউজ
শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে সিরিজে এগিয়ে প্রোটিয়ারা
দিনাজপুর বার্তা জুলাই ১, ২০২১, ৩:২৫ পূর্বাহ্ণ | পড়া হয়েছে ১৩০ বার |

দিনাজপুর বার্তা ২৪.কম ডেস্ক ॥ শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচের জন্ম দিয়ে ৫ ম্যাচের সিরিজে ২-১-এ এগিয়ে গেলো দক্ষিণ আফ্রিকা। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে তারা হারিয়েছে মাত্র ১ রানে। টানা তৃতীয় ম্যাচের মতো প্রোটিয়াদের শুরুতে ব্যাট করতে পাঠিয়েছিলেন কিয়েরন পোলার্ড। সফরকারীদের ৮ উইকেটে করা ১৬৭ রান- এই ম্যাচেও তাড়া করতে ব্যর্থ হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শেষ দুই ওভারে ১৯ রান প্রয়োজন থাকলেও প্রোটিয়া বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে তারা জয়ের বন্দরে নোঙর ফেলতে পারেনি। বিশেষ করে শেষ দুই বলে যখন ৮ প্রয়োজন, সেটা ভালোভাবেই ডিফেন্ড করতে সক্ষম হন কাগিসো রাবাদা। পঞ্চম বলটি ডট দিলে শেষ বলটিতে আসে মাত্র ৬ রান। এর আগে কুইন্টন ডি ককের ব্যাটে ভর করে ৮ উইকেটে ১৬৭ রান সংগ্রহ করে প্রোটিয়ারা। ডি ককের ৫১ বলে ৭২ রান বাদে বাকিরা সেভাবে আলো ছড়াতে পারেননি দুই মিডিয়াম পেসার ওবেড ম্যাকয় ও ডোয়াইন ব্রাভোর কল্যাণে। দুজনে মিলে ৭ উইকেট ভাগাভাগি করে নিয়েছেন। ম্যাকয় ক্যারিয়ার সেরা ২২ রানের বিনিময়ে নেন ৪ উইকেট। ২৫ রানে ৩টি নেন ব্রাভো। কিন্তু ম্যাকয়ের ক্যারিয়ার সেরা পারফরম্যান্সও কাজে আসেনি পরে। ব্যাটসম্যানদের লম্বা ইনিংস খেলতে না পারার ব্যর্থতা ভুগিয়েছে শেষ পর্যন্ত। বড় কৃতিত্ব বলতে হবে প্রোটিয়া পেসার আইনরিখ নর্কিয়ার। ১৭তম ওভারে ঝড় তোলার চেষ্টায় থাকা আন্দ্রে রাসেলের পাশাপাশি ১৯তম ওভারে বিদায় দেন বিপজ্জনক নিকোলাস পুরানকেও! এ ছাড়া ১৯তম ওভারে দিয়েছেন মাত্র ৪ রান। তাতেই ম্যাচটা চলে যায় প্রোটিয়াদের নিয়ন্ত্রণে। ক্যারিবীয়রা ৭ উইকেটে করতে পেরেছে ১৬৬ রান। বামহাতি স্পিনার তাবারাইজ শামসির মিতব্যয়ী বোলিংও কাজে দিয়েছে। ৪ ওভারে ১৩ রান দিয়ে নিয়েছেন মাত্র ২ উইকেট। নর্কিয়া ২৯ রানে নিয়েছেন দুটি। একটি করে নিয়েছেন জর্জ লিন্ডে, লুঙ্গি এনগিদি ও কাগিসো রাবাদা।

এই পাতার আরো খবর -
২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
দিনাজপুর, বাংলাদেশ
ওয়াক্তসময়
সুবহে সাদিকভোর ৪:৩৯ পূর্বাহ্ণ
সূর্যোদয়ভোর ৫:৫৬ পূর্বাহ্ণ
যোহরদুপুর ১১:৫৭ পূর্বাহ্ণ
আছরবিকাল ৪:১৭ অপরাহ্ণ
মাগরিবসন্ধ্যা ৫:৫৮ অপরাহ্ণ
এশা রাত ৭:১৪ অপরাহ্ণ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদকীয়