দিনাজপুর বার্তা ২৪ | Dinajpur Barta 24

ব্রেকিং নিউজ
উত্তর প্রদেশে মাংসের দোকানে আগুন
মোফাচ্ছিলুল মাজেদ মার্চ ২৫, ২০১৭, ১০:২৫ পূর্বাহ্ণ | পড়া হয়েছে ৬০৩ বার |

 

ছবি-০১

দিনাজপুর বার্তা২৪ ডেক্স // উত্তর প্রদেশে নতুন বিজেপি সরকার দায়িত্ব নেওয়ার দুই দিন পরই রাজ্যটির হাথরাসে তিনটি মাংসের দোকান আগুনে পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। গত মঙ্গলবার রাতে এসব দোকানে আগুন লাগানো হয়; সমাজ-বিরোধীরা এসব আগুন লাগিয়েছে বলে দাবি পুলিশের, খবর এনডিটিভির। এই ঘটনার পর হাথরাসে প্রতিবাদ বিক্ষোভ হচ্ছে বলে জানা গেছে। রোববার বিজেপির রাজ্য সরকারের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন কট্টর হিন্দুত্ববাদী নেতা যোগী আদিত্যনাথ। ৪৪ বছর বয়সী এই পুরোহিত রাজনীতিক কসাইখানাগুলোর বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক প্রচারণা চালিয়ে আসছেন। নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী শিগগিরই এ বিষয়ে একটি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে বলে জানিয়েছে বিজেপি। তবে শুধু অবৈধ কসাইখানাগুলোই বন্ধ করে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে। সব কসাইখানা বন্ধ করে দেওয়ার ধারাণাটিকে গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছে দলটি। সোমবার দুটি কসাইখানা বন্ধ করে দেওয়া হয়। সেগুলো অবৈধ ছিল বলে দাবি করেছে নতুন রাজ্য সরকার। নতুন সরকার দায়িত্ব নেওয়ার পরপরই সব থানাকে অবৈধ কসাইখানা ও গরু জবাইয়ের বিরুদ্ধে দৃঢ় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে উত্তর প্রদেশ পুলিশ।

 

ছবি-০২

লাহোর বিমানবন্দরে হামলার পরিকল্পনা ব্যর্থ, অস্ত্র উদ্ধার

দিনাজপুর বার্তা২৪ ডেক্স // লাহোরের আল্লামা ইকবাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে একটি সম্ভাব্য সন্ত্রাসী হামলার পরিকল্পনা ব্যর্থ করে দিয়েছে পাকিস্তানের এয়ারপোর্ট সিকিউরিটি ফোর্স (এএসএফ)। গতকাল বুধবার বিমানবন্দরে প্রবেশ পথে একটি গাড়ি থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে বাহিনীটি, জানিয়েছে ডননিউজ। এদিন সকালে বিমানবন্দরের তল্লাশি চৌকিতে একটি গাড়ি থামিয়ে তাতে তল্লাশি চালায় এএসএফ জোয়ানরা। বাহিনীটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তল্লাশির সময় গাড়িটিতে একটি স্বয়ংক্রিয় রাইফেল ও প্রচুর গুলি পাওয়া যায়।   উদ্ধার করা অস্ত্রশস্ত্রের মধ্যে রয়েছে একটি পয়েন্ট ২২৩ বোরের রাইফেল, এর সাতটি ম্যাগাজিন ও শতাধিক রাউন্ড গুলি। গাড়িটির চালককে লাহোরের বাসিন্দা হিসেবে শনাক্ত করে গাড়িসহ পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।

 

 ছবি-০৩

উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ ব্যর্থ

দিনাজপুর বার্তা২৪ ডেক্স // উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের একটি পরীক্ষা ব্যর্থ হয়েছে বলে দাবি করেছে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।

বিবিসির খবরে বলা হয়, সিউলের সামরিক বাহিনীর এক মুখপাত্র বলেছেন, উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের বিষয়ে দক্ষিণ কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র সজাগ আছে এবং উৎক্ষেপণ ব্যর্থ হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্রগুলো উৎক্ষেপণের কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে বিস্ফোরিত হয়ে গেছে, এটি শনাক্ত করার কথা নিশ্চিত করেছে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনী। উত্তর কোরিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় উপকূলীয় শহর ওনসান থেকে পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণগুলো চালানো হয়েছিল বলে জানা গেছে, তবে কতগুলো ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করা হয়েছিল এবং পরীক্ষাটি কোন ধরনের ছিল তা পরিষ্কার নয়। দিন দিন পরীক্ষামূলক ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের সংখ্যা বাড়িয়ে তুলছে উত্তর কোরিয়া। বিশেষজ্ঞদের ধারণা ক্ষেপণাস্ত্র প্রযুক্তির উন্নয়ন ঘটানোর চেষ্টায় এসব পরীক্ষা করছে দেশটি। চলতি মাসের প্রথমদিকে চারটি ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করেছিল উত্তর কোরিয়া, সেগুলো ১০০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে জাপানি জলসীমায় গিয়ে পড়েছিল। দেশটির সর্বশেষ এই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষাগুলোকে যুক্তরাষ্ট্র-দক্ষিণ কোরিয়ার চলমান বার্ষিক সামরিক মহড়ার প্রতিক্রিয়া হিসেবে বিবেচনা করছে পর্যবেক্ষকরা। এই সামরিক মহড়াকে তাদের ওপর আক্রমণের প্রস্তুতি হিসেবে বিবেচনা করে উত্তর কোরিয়া। যে কোনো ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র বা পারমাণবিক পরীক্ষা থেকে উত্তর কোরিয়াকে বিরত রাখার জন্য দেশটির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে রেখেছে জাতিসংঘ। কিন্তু নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে দেশটি ধারাবাহিকভাবে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছে।

  

ছবি-০৪

ট্রাম্পের সাবেক সহযোগীর বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ

দিনাজপুর বার্তা২৪ ডেক্স // যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণা শিবিরের সাবেক চেয়ারম্যান পল ম্যানাফোর্টের বিরুদ্ধে গোপনে তহবিল নেওয়ার অভিযোগ আবার উঠেছে। এবার অভিযোগটি তুলেছেন ইউক্রেইনের সাবেক অনুসন্ধানী সাংবাদিক আইনজীবী শেরহি লেশচেঙ্কো, জানিয়েছে বিবিসি। লেশচেঙ্কো দাবি করেছেন, ২০০৯ সালে রুশপন্থি একটি পক্ষের কাছ থেকে সাত লাখ ৫০ হাজার ডলার নিয়েছিলেন ম্যানাফোর্ট, যা তিনি লুকানোর চেষ্টা করেছেন। অভিযোগের প্রমাণ হিসেবে লেশচেঙ্কো একটি চালানের নথি প্রকাশ করেছেন, তাতে ম্যানাফোর্টের স্বাক্ষর আছে বলে বলা হয়েছে। এই চালানে দেখা গেছে, ডেভিস ম্যানাফোর্ট নামের একটি ফার্মে কম্পিউটার সরবরাহ করার জন্য সাড়ে সাত লাখ ডলার পরিশোধ করা হয়েছে। বেলিজের একটি অফশোর কোম্পানির পক্ষ থেকে কিরগিজস্তানের একটি ব্যাংকের মাধ্যমে এসব অর্থ পাঠানো হয়েছিল। লেশচেঙ্কো জানিয়েছেন, ইউক্রেইনের সাবেক প্রেসিডেন্ট ভিক্তর ইয়ানুকোভিচের রাজনৈতিক দল পার্টি অব রিজন্স কে পরামর্শ সেবা দেওয়ার বিনিময়ে ছদ্ম চুক্তির আড়ালে অর্থগুলো পাঠানো হয়েছিল। পাঠানো অর্থের পরিমাণ ও তারিখ, পার্টি অব রিজন্সের হিসাবরক্ষণ বইয়ের একটি ভুক্তির সঙ্গে খাপে খাপে মিলে গেছে বলে জানিয়েছেন লেশচেঙ্কো। লেশচেঙ্কোর এসব অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন ম্যানাফোর্টের মুখপাত্র জ্যাসন ম্যালোনি।  প্রেসিডেন্ট ইয়ানুকোভিচের রাজনৈতিক উপদেষ্টা ছিলেন ম্যানাফোর্ট। তবে এই পক্ষটির কাছ থেকে নগদ কোনো অর্থপ্রাপ্তির কথা অস্বীকার করেছেন তিনি। ২০১৪ সালে ইউক্রেইনজুড়ে প্রবল গণবিক্ষোভের মুখে প্রেসিডেন্ট ইয়ানুকোভিচ পদত্যাগে বাধ্য হন।  অপরদিকে ২০১৬-র অগাস্টে ইয়ানুকোভিচের সঙ্গে ম্যানাফোর্টের যোগাযোগের কথা প্রকাশিত হলে তাকে ট্রাম্পের প্রচারণা শিবিরের চেয়ারম্যানের পদ থেকে পদত্যাগে বাধ্য করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারণা চলাকালীন রাশিয়ার সঙ্গে সম্ভাব্য যোগাযোগ নিয়ে ট্রাম্পের যেসব সহযোগীদের বিরুদ্ধে এখন তদন্ত চলছে ম্যানাফোর্ট তাদের অন্যতম। সোমবার এফবিআইয়ের পরিচালক জেমস কোমি প্রথমবারের মতো নিশ্চিত করেছেন, তার সংস্থা যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার কথিত হস্তক্ষেপের বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে। 

 

ছবি-০৫

দ. কোরিয়ার সদ্য সাবেক প্রেসিডেন্টকে ১৪ ঘন্টা জিজ্ঞাসাবাদ

দিনাজপুর বার্তা২৪ ডেক্স // একটি দুর্নীতি কেলেঙ্কারির তদন্তের অধীনে দক্ষিণ কোরিয়ার সদ্য সাবেক প্রেসিডেন্ট পার্ক গুয়েন হি-কে ১৪ ঘন্টা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। সরকারি কৌঁসুলিদের কার্যালয়ে টানা ২২ ঘন্টা থাকার পর গতকাল বুধবার ভোরে কার্যালয়টি থেকে বের হয়ে তিনি অপেক্ষমাণ গাড়িতে রাজধানী সিউলের ব্যক্তিগত বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। এ সময় সাংবাদিকদের কোনো প্রশ্নের উত্তর দেননি তিনি। দুর্নীতি ও ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগে তিন মাস আগে পার্লামেন্টের ভোটাভুটিতে প্রেসিডেন্ট পার্ককে অভিশংসনের যে সিদ্ধান্ত হয়েছিল সাংবিধানিক আদালত তা বহাল রাখার পর ক্ষমতাচ্যুত হন তিনি। ব্যক্তিগত লাভের লক্ষ্যে এক পুরোনো বান্ধবীকে সুবিধা পাইয়ে দিতে রাজনৈতিক ক্ষমতা ও প্রভাব-প্রতিপত্তি ব্যবহার করেছেন এমন অভিযোগে গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে সংসদে ও রাজপথে পার্কের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু হয়। পার্ক ও তার বান্ধবী চোই সুন সিল দুইজনই ভুল কোনওকিছু করার কথা অস্বীকার করেন। প্রেসিডেন্ট পদে থাকাকালে দায়মুক্তির সুযোগে অভিযোগের বিষয়টি নিয়ে জেরার প্রচেষ্টা উপেক্ষা করে গেছেন পার্ক। কিন্তু প্রেসিডেন্ট হিসেবে অভিশংসিত হওয়ায় দায়মুক্তির সুযোগ হারান তিনি। গত মঙ্গলবার থেকে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা শুরু হয়েছে। এই প্রথম ফৌজদারি অপরাধের সন্দেহভাজন হিসেবে কৌঁসুলিরা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলেন। পার্ককে আবার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হবে, না তাকে আটকের জন্য আদালতের কাছে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার আর্জি জানানো হবে, এ বিষয়ে কোনো কিছু জানাননি কৌঁসুলিরা। পার্ককে যেসব প্রশ্ন করা হয়েছে তার বিস্তারিতও জানাননি তারা। তবে পার্ক ভালোভাবেই তদন্তে সহযোগিতা করছেন বলে জানিয়েছেন তারা। তার এক আইনজীবী, সোহন বুম গাইয়ু জানিয়েছেন, গত মঙ্গলবার মধ্যরাতের আগ পর্যন্ত তাকে ১৪ ঘ্ন্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। পার্কের বিরুদ্ধে এখনও কোনো অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। তবে অভিযুক্ত হলে তার ১০ বছরের বেশি কারাদ- হতে পারে। তার বিরুদ্ধে স্যামসাংয়ের মতো বিভিন্ন শিল্পগোষ্ঠী শীর্ষ কর্মকর্তাদের কাছ থেকে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ আছে। ৬৫ বছর বয়সী পার্ক দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি পাওয়া দক্ষিণ কোরিয়ার প্রথম গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট। গত মঙ্গলবার কৌঁসুলিদের কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি পাওয়ার পর দেওয়া প্রথম সংক্ষিপ্ত বিবৃতিতে জনগণের কাছে নিজের কার্যকলাপের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি।

  

ছবি-০৬

আজমির শরীফ বোমা হামলায় দুই হিন্দুত্ববাদীর যাবজ্জীবন

দিনাজপুর বার্তা২৪ ডেক্স // আজমিরের সুফি সাধক খাজা মইনুদ্দিন চিশতির দরগায় বোমা হামলার প্রায় ১০ বছর পর দুই হামলাকারীকে যাবজ্জীবন কারাদ-ের আদেশ দিয়েছেন জয়পুরের এক বিশেষ আদালত। ওই দুই হামলাকারী ভারতের হিন্দুত্ববাদী সংগঠন রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের (আরএসএস) কর্মী। ২০০৭ সালের ১১ অক্টোবর রমজান মাসে ইফতারের সময় ওই বোমা হামলা চালানো হয়। বিস্ফোরণে তিনজন নিহত হন, আহত হন আরও ১৫ জন।

প্রায় ১০ বছর ধরে তদন্ত ও শুনানি চলার পর গত ৮ মার্চ ওই হামলায় তিনজনকে দোষী সাব্যস্ত করেন আদালত। মামলা থেকে খালাস দেওয়া হয় আরএসএসের তাত্ত্বিক স্বামী অসীমানন্দকে। গতকাল বুধবার ওই বোমা হামলায় দোষী সাব্যস্ত করে জয়পুরে বিশেষ ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি (এনআইএ) আদালত দেবেন্দ্র গুপ্ত এবং ভবেশ প্যাটেলকে যাবজ্জীবন কারাদ-ের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এই ঘটনায় আরও এক অপরাধী সুনীল যোশীর মামলা চলাকালীনই মৃত্যু হয়। এই তিনজনই হিন্দুত্ববাদী সংগঠন আরএসএসের কর্মী। দেবেন্দ্র গুপ্ত এবং ভবেশ প্যাটেলকে পৃথকভাবে যথাক্রমে পাঁচ হাজার ও ১০ হাজার রুপি জরিমানাও করা হয়েছে। হামলাকারীরা ভারতীয় দ-বিধি ১২০ (বি)-এর অধীনে অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র, ২৯৫ (এ) ধারা অনুযায়ী, ধর্মীয় বিশ্বাসের জন্য আক্রমণ এবং বিশেষ অপরাধমূলক আইন ইউএপিএ-র ১৬ ও ১৮ ধারায় দোষী সাব্যস্ত হয়। খাজা মইনুদ্দিন চিশতির দরগা বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের মুসলিমদের জন্য অন্যতম পবিত্র স্থান। মুসলিমরা ছাড়াও অন্যান্য ধর্মের মানুষের কাছেও এই দরগা বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ।  ওই বোমা হামলার পর প্রাথমিক তদন্ত শুরুর সময়ে পুলিশের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছিল, পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-তৈয়বা ওই হামলা চালিয়েছে। এ বিষয়ক প্রচারণায় কয়েকটি ভারতীয় সংবাদমাধ্যমও বিশেষ ভূমিকা পালন করে। পরে তদন্তের মোড় ঘুরে হিন্দুত্ববাদী আরএসএসের দিকে। তদন্তের ভার তুলে দেওয়া হয়েছিল রাজস্থানের এটিএসের হাতে। পরে তদন্তের দায়িত্বভার যায় ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সির কাছে। দিল্লিতে ২০১১ সালের ৬ এপ্রিল এনআইএ পুলিশ স্টেশনে আবার মামলা দায়ের করা হয়। মামলার কাছ শুরু হয় বিশেষ আদালতে।  মামলা চলাকালীন ১৪৯ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয় এবং ৪৫১টি নথি খতিয়ে দেখা হয়। আদালতে তিনটি সহায়ক অভিযোগপত্রও পেশ করে এনআইএ। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া, ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

 

ছবি-০৭

রাক্কায় মার্কিন বিমান হামলায় নিহত ৩৩

দিনাজপুর বার্তা২৪ ডেক্স // মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) কথিত রাজধানী রাক্কায় মার্কিন নেতৃত্বাধীন আন্তর্জাতিক জোটের বিমান হামলায় অন্তত ৩৩ জন নিহত হয়েছেন। মানবাধিকার পর্যবেক্ষক সংগঠন সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস এবং রাক্কার একদল এক্টিভিস্ট ওই হামলার কথা নিশ্চিত করেছেন। সিরিয়ান অবজারভেটরি জানিয়েছে, সোমবার রাতে মার্কিন বাহিনী রাক্কার আল-মনসুরা এলাকায় বিমান হামলা চালায়। যে ভবনে বিমান হামলা চালানো হয়, সেখানে রাক্কার ঘরহারা মানুষজন আশ্রয় নিয়েছিল।

রাক্কার একটি এক্টিভিস্ট গ্রুপ জানিয়েছে, প্রতিনিয়ত নগরীতে হত্যাযজ্ঞ চালানো হচ্ছে। ওই ভবনে আশ্রয় নেওয়া ৫০টি পরিবারের ভাগ্যে কী ঘটেছে, সে সম্পর্কে নিশ্চিত করে কিছু জানাতে পারেনি ওই এক্টিভিস্টরা। তবে তারা এবং সিরিয়ান অবজারভেটরি মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোট ওই হামলা চালিয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে। মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোট এ সম্পর্কে কোনও মন্তব্য করেনি। তবে তারা জানিয়েছে, সোমবার আইএসের কথিত সদর দফতরে তিনবারসহ রাক্কার নিকটবর্তী অঞ্চলে আন্তর্জাতিক জোট ১৯ বার হামলা চালিয়েছে। সূত্র: বিবিসি।

 

ছবি-০৮

গোপন সামরিক আদালত ফিরিয়ে আনছে পাকিস্তান

দিনাজপুর বার্তা২৪ ডেক্স // মানবাধিকার কর্মীদের তীব্র বিরোধ সত্ত্বেও গোপন সামরিক আদালত আবারও চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, ওই আদালত পুনর্বহালের স্বার্থে একটি বিল পাশ করেছে পাকিস্তান আইনসভার নিন্মকক্ষ। পেশওয়ারের সামরিক স্কুলে জঙ্গি হামলায় শতাধিক শিশু নিহত হওয়ার পর ওই আদালত স্থাপন করেছিল দেশটি। গত ৭ই জানুয়ারি এর ম্যান্ডেট শেষ হয়। ২০১৫ সালে সামরিক বাহিনীর দ্বারা পরিচালিত একটি স্কুলে তালেবান হামলায় অন্তত ১৩৪ শিশু নিহত হওয়ার জেরে প্রথমবারের মতো এই আদালত স্থাপন করা হয়েছিলো। সন্ত্রাসী কর্মকা-ে অভিযুক্ত বেসামরিক লোকদের বিচারকার্যের জন্য এই আদালত প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। জানুয়ারিতে এর দুই বছরের ম্যান্ডেট শেষ হয়ে যাওয়ায় এটি পুনর্বহালে বিল আনা হয়েছে। বিবিসি জানিয়েছে, পাকিস্তানের নিম্মকক্ষে ইতোমধ্যে পাসকৃত সামরিক আদালত বিলটি গতকাল বুধবার সিনেটে তোলা হবে অনুমোদনের জন্য।  এর আগে, গত জানুয়ারিতেই এই আদালত পুনর্বহাল করতে চেয়েছিলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ। সেসময় পার্লামেন্টের এর পক্ষে দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা না থাকায় তা আটকে যায়। পরে বিভিন্ন দলের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে এ ব্যাপারে ঐকমত্যে এসেছেন তারা। নতুন বিলে পুর্বের তুলনায় নতুন কিছু সংশোধনীও আনা হয়েছে। ইতোমধ্যে গত দুবছরে এ আদালত প্রায় ১৬০ জন ব্যক্তিকে ফাঁসিতে ঝুলিয়েছে। এ ধরণের গোপন সামরিক আদালতের মাধ্যমে পাকিস্তান ছোটখাট অপরাধে মৃত্যুদ- দিচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছে দেশীয় ও আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলো। এর বিচারকার্যে স্বচ্ছতা ও যথাযথ প্রক্রিয়ার অভাব রয়েছে জানিয়ে এটি বন্ধে বারবার আহ্বান জানিয়ে আসছে তারা।

এই পাতার আরো খবর -
২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
দিনাজপুর, বাংলাদেশ
ওয়াক্তসময়
সুবহে সাদিকভোর ৪:৪০ পূর্বাহ্ণ
সূর্যোদয়ভোর ৫:৫৭ পূর্বাহ্ণ
যোহরদুপুর ১১:৫৬ পূর্বাহ্ণ
আছরবিকাল ৪:১৪ অপরাহ্ণ
মাগরিবসন্ধ্যা ৫:৫৫ অপরাহ্ণ
এশা রাত ৭:১১ অপরাহ্ণ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদকীয়