দিনাজপুর বার্তা ২৪ | Dinajpur Barta 24

ব্রেকিং নিউজ
অশ্রুসিক্ত অবস্থায় সকলকে কাঁদিয়ে বিদায় নিলেন দিনাজপুর পুলিশ সুপার মো. হামিদুল আলম.বিপিএম
মোফাচ্ছিলুল মাজেদ আগস্ট ১৬, ২০১৮, ৩:০০ অপরাহ্ণ | পড়া হয়েছে ৯১৯ বার |

অরবিন্দ, দিনাজপুর।- সকলকে কাঁদিয়ে বিদায় নিলেন মাদকের সাথে জিহাদ ঘোষনাকারী দিনাজপুর জেলা পুলিশ সুপার মো. হামিদুল আলম.বিপিএম। এসময় তাকে রেওয়াজ অনুযায়ী পুলিশ সুপারকে সপরিবারের পুষ্প সজ্জিত গাড়িতে তুলে গাড়িটি রশি দিয়ে টেনে সহকর্মীরা পুলিশ লাইনস্ হল রুমের সম্মুখ রাস্তা হতে মূল ফটক পর্যন্ত এগিয়ে দেন।
১৫ আগস্ট বুধবার দুপুরে পুলিশ লাইনস্ হল রুমে বিদায় বিদায় সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অশ্রুসিক্ত চোখে অল্পস্বরে বক্তব্য দেন বিদায়ী পুলিশ সুপার মো. হামিদুল আলম.বিপিএম। এসময় তিনি বলেন, তিন অক্ষরের ছোট্ট একটি শব্দ-বিদায়। মাত্র তিন অক্ষর। কিন্তু শব্দটির আপাদমস্তক বিষাদে ভরা। শব্দটা কানে আসতেই মনটা কেন যেন বিষন্ন হয়ে ওঠে। এমন কেন হয়? কারণ এই যে, বিদায় হচ্ছে বিচ্ছেদ। আর প্রত্যেক বিচ্ছেদের মাঝেই নিহিত থাকে নীল কষ্ট। বিদায় জীবনে শুধু একবারই নয়, এক জীবনে মানুষকে সম্মুখীন হতে হয় একাধিক বিদায়ের। সে-ই যে জন্ম লগ্ন থেকে বিদায়ের সূচনা, তারপর জীবন পথের বাঁকে বাঁকে আরো কত বিদায় যে অনিবার্য হয়ে আসে…
বিদায় যখন সন্নিকটে তখন হঠাৎ করেই অঝোরে কেঁদে ফেলেন তিনি। পরে অশ্রুসিক্ত অবস্থায় বক্তব্যের ইতি টানেন তিনি।
বিদায়ী পুলিশ সুপার মো. হামিদুল আলম. বিপিএমকে পুলিশ লাইন্সের অস্ত্রাগার ভবনের সামনে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়। এরপর রাস্তার দুইপাশে দাঁড়ানো পুলিশ সদস্যদের সংগে প্রথমে করমর্দন ও পরে কোলাকুলি করলেন। এরপর পুষ্প সজ্জিত গাড়িতে সস্ত্রীক, একমাত্র কন্যা ও দুই পুত্র কে নিয়ে উঠলেন।
তাঁর গাড়ির সামনে মোটা রশি লাগানো। দুইপাশে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, সহকারী পুলিশ সুপার, ওসি, পরিদর্শকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা রশি টেনে তাঁকে পুলিশ লাইনস প্রধান ফটক পর্যন্ত এগিয়ে দেন। তিনি তখন অশ্রু সিক্ত। এরপর তিনি বিদায় নেন।

এই পাতার আরো খবর -
৮ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
দিনাজপুর, বাংলাদেশ
ওয়াক্তসময়
সুবহে সাদিকভোর ৪:৪৪ পূর্বাহ্ণ
সূর্যোদয়ভোর ৬:০০ পূর্বাহ্ণ
যোহরদুপুর ১১:৫৩ পূর্বাহ্ণ
আছরবিকাল ৪:০৭ অপরাহ্ণ
মাগরিবসন্ধ্যা ৫:৪৬ অপরাহ্ণ
এশা রাত ৭:০২ অপরাহ্ণ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদকীয়