দিনাজপুর বার্তা ২৪ | Dinajpur Barta 24

ব্রেকিং নিউজ
পঞ্চগড়ের সুলতানা পারভীন, জেলা প্রশাসকের দায়িত্ব পেলেন কুড়িগ্রাম জেলার
মোফাচ্ছিলুল মাজেদ ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১৮, ৭:৪৮ অপরাহ্ণ | পড়া হয়েছে ৭৭৯ বার |

মো: একরামুল মুন্না, পঞ্চগড় প্রতিনিধি:

কুড়িগ্রাম জেলার জেলা প্রশাসক (ডিসি) হিসেবে দায়িত্ব পেলেন পঞ্চগড়ের মেয়ে সুলতানা পারভীন।

রবিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মাহবুবুর রহমানের স্বাক্ষরিত একটি প্রজ্ঞাপনে আদেশ জারী করা হয়।

 

ইতিপূর্বে তিনি লালমনিরহাট জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। পঞ্চগড় জেলার সন্তান হিসেবে তিনি প্রথম মহিলা জেলা প্রশাসক হলেন।

 

১৯৭৩ সালে পঞ্চগড় জেলার সদর উপজেলার হাফিজাবাদ ইউনিয়নের জিয়াবাড়ি-সরদার পাড়া এলাকায় এক মুসলিম পরিবারে জন্ম নেন সুলতানা পারভীন। ৯ ভাই বোনের মধ্যে তিনি সপ্তম। বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী বিডিআর এর অবসর প্রাপ্ত সুবেদার ও মা গুলেছা আক্তার বানু এখন পঞ্চগড় শহরের জালাসী এলাকায় ছেলেদের সাথে বাস করছেন।

সুলতানা পারভীনের শিক্ষা জীবন শুরু হয় পঞ্চগড়ের হাফিজাবাদ ইউনিয়নের সরদার পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। এরপর পঞ্চগড় সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে মাধ্যমিক, পঞ্চগড় সরকারি মহিলা কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করে দর্শন বিভাগে ভর্তি হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে।

২০ তম বিসিএসে প্রশাসন ক্যাডারে উত্তীর্ণ হয়ে তিনি লক্ষীপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সহকারী কমিশনার হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। কুড়িগ্রামের জেলা প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পূর্ব মূহূর্ত  পর্যন্ত তিনি লালমনিরহাট জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

ব্যক্তিগত জীবনে তিনি দুই সন্তানের জননী। সুলতানা পারভীনের দুই মেয়ে জয়পুরহাট মহিলা ক্যাডেট স্কুল এন্ড কলেজের ছাত্রী এবং স্বামী একজন সিনিয়র জেলা তথ্য কর্মকর্তা।

সুলতানা পারভীন পঞ্চগড়ের মেয়ে হিসেবে পঞ্চগড় জেলা থেকে প্রথম নারী জেলা প্রশাসক হওয়ায় তাকে নিয়ে শুধু তার পরিবার গর্বিত নয় গর্বিত পুরো পঞ্চগড়বাসী।

 

এই পাতার আরো খবর -
৪ঠা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
দিনাজপুর, বাংলাদেশ
ওয়াক্তসময়
সুবহে সাদিকভোর ৪:৪৩ পূর্বাহ্ণ
সূর্যোদয়ভোর ৫:৫৯ পূর্বাহ্ণ
যোহরদুপুর ১১:৫৪ পূর্বাহ্ণ
আছরবিকাল ৪:১০ অপরাহ্ণ
মাগরিবসন্ধ্যা ৫:৪৯ অপরাহ্ণ
এশা রাত ৭:০৬ অপরাহ্ণ
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদকীয়